ইমরানকে ‘মাইনাস করতে’ মাঠে পিটিআইয়ের দলত্যাগী নেতারা!

#
news image

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে রাজনীতি থেকে ‘মাইনাস’ বা সরিয়ে দিতে তৎপর হয়েছেন পিটিআই থেকে পদত্যাগ করা কিছু নেতা। আর এর নেতৃত্বে রয়েছেন সাবেক তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী।

গত ৯ মে ইমরানকে গ্রেপ্তার ও এর পরবর্তী সহিংসতার (সেনাবাহিনীর সদর দপ্তরে হামলা) জেরে ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) থেকে পদত্যাগ করেন বেশ কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় নেতা। তবে তাদের সঙ্গে যোগ দেননি দলটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট শাহ মেহমুদ কোরেশি। তিনি বর্তমানে জেলে বন্দি আছেন।

এখন এই কোরেশিকে নিজেদের দলে ভেড়াতে চাইছেন দলত্যাগীরা। এ উদ্দেশ্যে বুধবার (৩১ মে) আদিয়ালা জেলে কোরেশির সঙ্গে দেখা করেন ফাওয়াদ চৌধুরীসহ কয়েকজন।পাক সংবাদমাধ্যম দ্য ডন জানিয়েছে, ইমরানের সঙ্গ ত্যাগ করে তাদের সঙ্গে যোগ দিতে কোরেশিকে অনুরোধ করেছিলেন ফাওয়াদ।

আদিয়ালা জেলে বুধবার ফাওয়াদের সঙ্গে আরও ছিলেন সিন্ধ প্রদেশের সাবেক গভর্নর ইমরান ইসমাইল, আমীর কিয়ানি এবং মেহমুদ মৌলভী। কোরেশির সঙ্গে একটি আলাদা কক্ষে বৈঠক করার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয় তাদের। তবে কোরেশি তাদের কথায় ‘ইমরানের সঙ্গে ছাড়তে’ রাজি হননি বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম ডন।

এই বৈঠকের পর কোরেশির ছেলে জাইন কোরেশি টুইটারে লিখেছেন, ‘শাহ কোরেশি সাহেব দলের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং তিনি একটি আদর্শের নাম। আমরা ইমরান খান ও পিটিআইয়ের আদর্শের সঙ্গে আছি। শাহ মোহাম্মদ কোরেশী রাজনীতি করেছেন নীতি এবং সেবার— পদ এবং লোভের নয়।’

এক সপ্তাহ আগে ইমরান খান ঘোষণা দেন যদি রাজনৈতিকভাবে তাকে নিষিদ্ধ করা হয় তাহলে তার জায়গায় পিটিআইয়ের নেতৃত্ব দেবেন শাহ মোহাম্মদ কোরেশি।

এদিকে কোরেশির সঙ্গে আলোচনা শেষে বাইরে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ফাওয়াদ চৌধুরী। তিনি জানান, দেশকে একটি স্থিতিশীল অবস্থায় নিতে তাদের মধ্যে ভালো আলোচনা হয়েছে।

পাকিস্তানে বর্তমানে একটি গুজব চলছে, যেসব রাজনীতিক পিটিআই ছেড়েছেন তারা একটি নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের চিন্তা করছেন। যেই দলে ইমরান বাদে অন্যরা থাকবেন।

সূত্র: দ্য ডন

নিজস্ব প্রতিবেদক

২-৬-২০২৩ দুপুর ১২:৬

news image

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে রাজনীতি থেকে ‘মাইনাস’ বা সরিয়ে দিতে তৎপর হয়েছেন পিটিআই থেকে পদত্যাগ করা কিছু নেতা। আর এর নেতৃত্বে রয়েছেন সাবেক তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী।

গত ৯ মে ইমরানকে গ্রেপ্তার ও এর পরবর্তী সহিংসতার (সেনাবাহিনীর সদর দপ্তরে হামলা) জেরে ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) থেকে পদত্যাগ করেন বেশ কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় নেতা। তবে তাদের সঙ্গে যোগ দেননি দলটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট শাহ মেহমুদ কোরেশি। তিনি বর্তমানে জেলে বন্দি আছেন।

এখন এই কোরেশিকে নিজেদের দলে ভেড়াতে চাইছেন দলত্যাগীরা। এ উদ্দেশ্যে বুধবার (৩১ মে) আদিয়ালা জেলে কোরেশির সঙ্গে দেখা করেন ফাওয়াদ চৌধুরীসহ কয়েকজন।পাক সংবাদমাধ্যম দ্য ডন জানিয়েছে, ইমরানের সঙ্গ ত্যাগ করে তাদের সঙ্গে যোগ দিতে কোরেশিকে অনুরোধ করেছিলেন ফাওয়াদ।

আদিয়ালা জেলে বুধবার ফাওয়াদের সঙ্গে আরও ছিলেন সিন্ধ প্রদেশের সাবেক গভর্নর ইমরান ইসমাইল, আমীর কিয়ানি এবং মেহমুদ মৌলভী। কোরেশির সঙ্গে একটি আলাদা কক্ষে বৈঠক করার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয় তাদের। তবে কোরেশি তাদের কথায় ‘ইমরানের সঙ্গে ছাড়তে’ রাজি হননি বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম ডন।

এই বৈঠকের পর কোরেশির ছেলে জাইন কোরেশি টুইটারে লিখেছেন, ‘শাহ কোরেশি সাহেব দলের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং তিনি একটি আদর্শের নাম। আমরা ইমরান খান ও পিটিআইয়ের আদর্শের সঙ্গে আছি। শাহ মোহাম্মদ কোরেশী রাজনীতি করেছেন নীতি এবং সেবার— পদ এবং লোভের নয়।’

এক সপ্তাহ আগে ইমরান খান ঘোষণা দেন যদি রাজনৈতিকভাবে তাকে নিষিদ্ধ করা হয় তাহলে তার জায়গায় পিটিআইয়ের নেতৃত্ব দেবেন শাহ মোহাম্মদ কোরেশি।

এদিকে কোরেশির সঙ্গে আলোচনা শেষে বাইরে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ফাওয়াদ চৌধুরী। তিনি জানান, দেশকে একটি স্থিতিশীল অবস্থায় নিতে তাদের মধ্যে ভালো আলোচনা হয়েছে।

পাকিস্তানে বর্তমানে একটি গুজব চলছে, যেসব রাজনীতিক পিটিআই ছেড়েছেন তারা একটি নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের চিন্তা করছেন। যেই দলে ইমরান বাদে অন্যরা থাকবেন।

সূত্র: দ্য ডন